Home / প্রবাসী নিউজ / সৌদি আরবে চাকরি হারানোর ঝুঁ’কিতে এক লাখ প্র’বাসী বাংলাদেশি

সৌদি আরবে চাকরি হারানোর ঝুঁ’কিতে এক লাখ প্র’বাসী বাংলাদেশি

মধ্যপ্রাচ্যে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় শ্রমবাজার সৌদি আরব। এ দেশটিতে বর্তমানে বিভিন্ন খাতে কর্মরত রয়েছে প্রায় ২২ লাখ প্রবাসী বাংলাদেশি শ্রমিক। কিন্তু নভেল করোনাভাইরাসজ’নিত মহামারির কারণে গত তিন মাসে এক লাখেরও বেশি মা’নুষের সৌদি আরবে যাও’য়া আ’টকে গেছে। তাদের অর্ধে’কেরও বেশি ছুটি কাটাতে বাংলাদেশে এসে আর ফিরতে পারেনি।

এদিকে বেসর’কারি সংস্থা ব্র্যা’কের হিসাব অনু’যায়ী, চলতি বছর ফেব্রু’য়ারির মাঝামাঝি থেকে মার্চে ফ্লাইট চলাচল বন্ধের আগ পর্যন্ত, বিশ্বে’র বিভিন্ন দেশ থেকে দুই লাখের বেশি অভি’বাসী শ্র’মিক ফে’রত এসেছে। গত ফেব্রু’য়ারির মাঝামা’ঝি থেকে মার্চে ফ্লাইট চলাচল বন্ধের আগ পর্যন্ত,

সৌদি আ’রব থেকে ৪১ হা’জারের মতো শ্রমিক দেশে ফিরেছে। পরে চার্টার্ড বিমানে ফি’রেছে আ’রো ১৩ হাজারের বেশি। তাদেরও একটি বড় অংশ সৌদি আরব থেকে এসেছে। এ ছাড়া গত তিন মাসে সৌ’দি আরবে যাওয়ার কথা ছিল, এমন শ্রমিকের সংখ্যা ৫০ হাজা’রের বেশি।

বাংলাদেশ থেকে গড়ে ৫০ থেকে ৬০ হাজারের মতো মানুষ প্রতি মাসে বিদেশে কাজের জন্য যায়। তাদের মধ্যে সব’চেয়ে বড় অংশটি যায় সৌদি আরবে। দেশটিতে গত জানু’য়ারি মাসেও গেছে অন্তত ৫২ হাজার বাং’লাদেশি, ফেব্রুয়ারিতে ৪৪ হা’জার আর মার্চে ফ্লা’ইট বন্ধের আগ পর্য’ন্ত গেছে ৩৮ হাজার মানুষ।

সম্প্রতি সৌদি আরবের ইংরেজি দৈনিক সৌদি গেজেটে প্রকাশিত এক প্রতিবে’দনে জানানো হয়েছে, মহামারির কারণে এ বছর সৌ’দির শ্রমবাজারে ১২ লাখ বিদেশি কর্মী চাকরি হারাবে। প্রতিবেদনটিতে একটি স্থানীয় গবেষণা সংস্থার বরাত দিয়ে বলা হয়, নির্মাণ খাত, পর্যটন (হজ), রেস্তো’রাঁসহ বিভিন্ন খাতে এ চাকরিচ্যুতি ঘটতে পারে।

তবে, বাংলা’দেশ সরকা’রের প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসং’স্থান মন্ত্রণালয় ইতো’মধ্যে সৌদি আরবের রিয়াদ বাংলাদেশ দূতা’বাস এবং জেদ্দা বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনা’রেলের সঙ্গে সার্বক্ষ’ণিক যো’গাযোগ রাখছে, যেন সেখানে বাংলা’দেশি কর্মীরা বি’পদে না পড়ে।

জানা গেছে, যাদের বৈধ পাসপোর্ট এবং আকামা রয়েছে, তাদের চুক্তি যেন বহাল থাকে সেজন্য জেদ্দা-রিয়াদে নিয়’মিত যোগাযোগ রাখছেন বাংলাদে’শের কর্মকর্তারা। বিষয়টি নিয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ আন্তমন্ত্রণালয় আ’লোচনা চলছে।করোনা মহা’মারির কারণে সৌদি আর’বে কর্মসংস্থান হুম’কির মুখে পড়েছে, দেশে থাকা এমন শ্রমিকদের কী করা উচিত, সে বিষয়ে অভিবাসন বিশে’ষজ্ঞরা বলছেন-

১. সবার আগে সুস্থ থাকতে হবে। করোনাভা’ইরাসের সংক্র’মণ থেকে নিরাপদ থাকতে হবে, শারী’রিক সুস্থ থাকার জন্য স্বাস্থ্য’বিধি অনুসরণ করতে হবে। সুস্থ না থাকলে সৌদি আরবসহ কোনো দেশেই বিমান ভ্রমণ করা যাবে না এবং গেলেও চুক্তি বহাল থাকবে না।
২. আত’ঙ্কিত হওয়া যাবে না। মানসিক’ভাবে সুস্থ থাকার চেষ্টা করতে হবে।
৩. বর্তমান পরিস্থিতিতে সংশ্লিষ্ট এ’জেন্সির সঙ্গে যোগাযোগ রাখুন, হা’লনাগাদ তথ্যের দিকে চোখ রাখুন।
৪. নতুন কোনো দক্ষতা অর্জ’নের চেষ্টা করুন।
৫. বিদেশে শ্রমিক হিসেবে নিজের অধিকার সম্পর্কে জানুন।

About admin

Check Also

কুয়ালালামপুর-ঢাকা রুটে বিমানের বিশেষ ফ্লাইট চালু ১৮ জুলাই

মালয়েশিয়ার কুয়ালা’লামপুর থেকে ঢাকা রুটে ফ্লা’ইট চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। আগামী ১৮ জুলাই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *