‘আমিরাতকে জবাবদিহিতার আওতায় আনবে তুরস্ক’

0
4
views

তুর্কি প্রতির’ক্ষামন্ত্রী হুলুসি আকার বলেছেন, সংযুক্ত আরব আমিরাত একটি চ’তুর রাষ্ট্র। তারা দূর থেকে বিভিন্ন দেশে অস্থিরতা তৈরিতে বি’ভিন্নগোষ্ঠীকে রাজনৈতিক এবং সামরিক সহায়তা দেয়। আল জাজিরাকে দেয়া সাক্ষাত’কারে লিবিয়া এবং সি’রিয়ায় আমিরাতের ভূমিকার তীব্র সমালোচনা করেন তিনি। বলেন, ‘লিবিয়া ও সিরিয়ায় আমিরাতের অ’পকর্মের জন্য অবশ্যই তাদের আমরা জবাবদি’হিতার কাঠগড়ায় দাঁড় করাবো।

সঠিক জায়গায়, সঠিক সময়ে তা করা হবে।’ আমি’রাতকে তাদের দু’ষ্ক’র্ম বন্ধের আহ্বান জানান আকার। একইসঙ্গে ভিন’দেশের ছো’টবড় গোষ্ঠীকে রাষ্ট্রদ্রোহিতা এবং দুর্নীতি করতে সহায়তা না দেয়ার বিষয়টি বিবেচনার তাগিদ দেন। তুর’স্কের ক্ষতি করার জন্য তুর্কি সন্ত্রা’সী গোষ্ঠীগুলোকে আ’মিরাত সহায়তা দিচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন হুলুসি আকার।

লিবিয়া ইস্যুতে তিনি বলেন, ‘আ’মিরাতের প্রতি আহ্বান তারা যেন শান্তি প্রতিষ্ঠায় বিঘ্ন ঘটায় এমন কোনো পদক্ষেপ না নেয়। উস্কা’নি, যুদ্ধে জ্বালানি যোগাবে, শান্তি নয়। এছাড়া, যারা জেনারেল খলিফা হাফ’তারকে সহায়তা দিচ্ছেন তাদেরকে আহ্বান জানাবো শান্তি, নিরাপত্তার স্বার্থে তা বন্ধ করুন।’

‘যদি সংযুক্ত আরব আমিরাত, সৌদি আরব, মিশর, রাশিয়া এবং ফ্রান্স লিবিয়া সংঘাতে তাদের সহযোগিতা বন্ধ না করে, তাহলে লিবিয়া সং’ক’টের সমাধানে পৌঁ’ছানো অ’সম্ভব।’ সত’র্ক করেন আকার।

‘এই দেশগুলোর উচিত হফতারকে তার লক্ষ্য অর্জনে বাধা দেওয়া। আল-জাফরা প্রণালী সমস্যার সমাধান করা।’ লিবিয়া সং’কট সমধানে জাতিসংঘ স্বীকৃত সরকার এবং তার মিত্রদের স’যোগিতার জন্য সবার প্রতি আ’হ্বান জানান তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here